শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর :
বিএসএমএমইউ ৬০০ নার্স নিয়োগ দেবে করোনায় দেশে ৩২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২,১৩১ আ.লীগ বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে: তথ্যমন্ত্রী সরকারের দুঃশাসনের সীমা ছাড়িয়ে গেছে: রিজভী রেমিটেন্সের ইতিবাচক ধারা অব্যাহত খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়াতে পরিবারের আবেদন চিরনিদ্রায় শায়িত রাহাত খান সিনহা হত্যা: পুলিশের মামলার তিন সাক্ষী চারদিনের রিমান্ডে এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা কাটছে না ‘১লা সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় চলবে গণপরিবহণ’ সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ পুতিনের মেয়ের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করেছে রুশ ভ্যাকসিন ভারতে করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ৩৪ লাখ পুলওয়ামায় লস্কর-ই-তৈয়বার তিন জঙ্গি নিহত ঘুর্ণিঝড় লরায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ জনে ‘পুতিন একটু চা খাও’ বিশ্বে করোনায় সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৭২ লাখের বেশি করোনায় সবচেয়ে বিপর্যয়ের মুখে যুক্তরাষ্ট্র ভারতে ৮৭ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত ইউরোপে আবারও বাড়ছে করোনা সংক্রমণ
বিজ্ঞপ্তি :
চলছে পরীক্ষামুলক সংবাদ প্রচার

শুধু করোনা আক্রান্তরাই যেতে পারবেন এই দ্বীপে

রিপোর্টারের নাম / ৫৩ জন দেখেছেন
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

মনোমুগন্ধকর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অন্যতম স্থান ব্রাজিলের ফার্নান্দো দে নরোনহা দ্বীপটি পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। এরপরই এখানে ভ্রমণ নিয়ে শর্ত জুড়ে দিয়েছে দ্বীপ কর্তৃপক্ষ।

তারা জানিয়েছে, দ্বীপটিতে তারাই ভ্রমণ করতে পারবেন যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এছাড়া, ফার্নান্দো দে নরোনহা দ্বীপটি আগামী সপ্তাহেই পর্যটকরা প্রবেশ করতে পারবে বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার দ্বীপ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কমপক্ষে ২০ দিন আগে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে এমন পর্যটকরা নমুনা পরীক্ষার ফল দেখিয়ে দ্বীপে প্রবেশ করতে পারবেন। এছাড়া করোনা মোকাবিলায় যাদের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে তারাও সনদ দেখিয়ে দ্বীপে যেতে পারবেন।

এর আগে, করোনা ভাইরাসের মহামারির কারণে মার্চের মাঝামাঝি থেকে এ দ্বীপে পর্যটকদের যাতায়ত বন্ধ ছিল। তবে গত ৩১ জুলাই এটি স্থানীয় গবেষক ও দ্বীপের বাসিন্দাদের জন্য আবার খোলা হয়েছিল।

ব্রাজিলের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অবস্থিত এই ‘ফার্নান্দো দে নরোনহা’ দ্বীপটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্যেও পরিচিত। সমৃদ্ধ প্রাকৃতিক জীব-বৈচিত্র্যের কারণে এই দ্বীপটি ২০০১ সাল থেকে ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় রয়েছে। বিরল উদ্ভিদ এবং জীবজন্তু সমৃদ্ধ দ্বীপটি একটি সংরক্ষিত অঞ্চল।

এই দ্বীপটি সম্পর্কে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল এটি কোনো পৌরসভা বা প্রশাসনের অধীনে নেই। যা আধুনিক বিশ্বে একদম বিরল। তবে দ্বীপটিতে রয়েছে সুন্দর সমুদ্র সৈকত। যেটি অনেকগুলো বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে অতুলনীয় বলে খেতাব পেয়েছে। রয়েছে ডলফিন, তিমি, বিরল পাখি আর কচ্ছপ সহ আরো নানা প্রাণীর সংরক্ষণ। এসব প্রাণী সংরক্ষণের জন্যেও দ্বীপটিতে জনসংখ্যা কম রাখার ব্যাপারে সরকারি চাপ রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সংক্রান্ত খবর