বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৪:০২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর :
বিএসএমএমইউ ৬০০ নার্স নিয়োগ দেবে করোনায় দেশে ৩২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২,১৩১ আ.লীগ বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে: তথ্যমন্ত্রী সরকারের দুঃশাসনের সীমা ছাড়িয়ে গেছে: রিজভী রেমিটেন্সের ইতিবাচক ধারা অব্যাহত খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়াতে পরিবারের আবেদন চিরনিদ্রায় শায়িত রাহাত খান সিনহা হত্যা: পুলিশের মামলার তিন সাক্ষী চারদিনের রিমান্ডে এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা কাটছে না ‘১লা সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় চলবে গণপরিবহণ’ সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ পুতিনের মেয়ের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করেছে রুশ ভ্যাকসিন ভারতে করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ৩৪ লাখ পুলওয়ামায় লস্কর-ই-তৈয়বার তিন জঙ্গি নিহত ঘুর্ণিঝড় লরায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ জনে ‘পুতিন একটু চা খাও’ বিশ্বে করোনায় সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৭২ লাখের বেশি করোনায় সবচেয়ে বিপর্যয়ের মুখে যুক্তরাষ্ট্র ভারতে ৮৭ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত ইউরোপে আবারও বাড়ছে করোনা সংক্রমণ
বিজ্ঞপ্তি :
চলছে পরীক্ষামুলক সংবাদ প্রচার

চিরনিদ্রায় শায়িত রাহাত খান

রিপোর্টারের নাম / ১৭৫ জন দেখেছেন
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৪:০২ অপরাহ্ন

মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক রাহাত খান। এর আগে তার মরদেহ নেয়া হয় জাতীয় প্রেসক্লাবে। সেখানে শ্রদ্ধা জানান দীর্ঘদিনের সহকর্মী এবং সহযোদ্ধারা।

রাহাত খানের বিদায়ে শোকাহত দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধারা। শনিবার (২৯ আগস্ট) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে তাঁর মরদেহ আনার পর সেখানে একে একে জড়ো হতে থাকেন পরিবারের সদস্য, সাংবাদিক ও সাহিত্য অঙ্গনের গুণীজন। স্মৃতি চারণে কান্নায় ভেঙে পড়েন তার স্ত্রী অপর্ণা খান।

মুক্তবুদ্ধির চর্চা ও সমাজ উন্নয়নে ভূমিকা রাখা গুণী এই মানুষের মৃত্যু সাংবাদিক ও সাহিত্য জগতের অপূরণীয় ক্ষতি বলে মনে করেন তার সহকর্মীরা। তারা বলেন, সাংবাদিকতার পাশাপাশি লেখক হিসেবে তিনি ছিলেন খ্যাতিমান। তার অবদান কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করবে এদেশের মানুষ। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

প্রেসক্লাবে জানাজা শেষে রাহাত খানের মরদেহ নেয়া হয় তাঁর শেষ কর্মস্থল তেজগাঁয়ের “প্রতিদিনের সংবাদ” কার্যালয়ে। সেখানে দ্বিতীয় নামাজে জানাজার পর, শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তার শেষ ঠিকানা হয় মিরপুরের বুদ্ধিজীবী কবরস্থান।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টায় রাজধানীর ইস্কাটনে নিজ বাসায় মারা যান তিনি। গত ২০ জুলাই রাহাত খানকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগের দিন বাসায় বিছানা থেকে নামতে গিয়ে কোমরে ব্যথা পান তিনি। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে এক্সরে করা হলে তার পাঁজরে গভীর ক্ষত ধরা পড়ে। এর পাশাপাশি তার শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে জরুরি ভিত্তিতে তাকে বারডেম হাসপাতালের আইসিউতে ভর্তি করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ, কিডনি, ডায়বেটিসসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। এ কারণে তার চিকিৎসার প্রক্রিয়া জটিল হয়ে পড়ায় সার্জারি করা যাচ্ছিল না বলে বাসাতেই অবস্থান করছিলেন তিনি।

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার জাওয়ার গ্রামের কৃতী সন্তান রাহাত খানের জন্ম ১৯৪০ সালের ১৯ ডিসেম্বর। দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় কর্মজীবন শুরু করেন। তারপর যোগ দেন দৈনিক ইত্তেফাকে। একুশে পদক; বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারসহ লেখক আর সাংবাদিকতার জন্য পেয়েছেন অনেক সম্মাননা। দিলুর গল্প, অনিশ্চিত লোকালয়, অমল ধবল চাকরি, ছায়া দম্পতি, মন্ত্রীসভার পতন রাহাত খানের উল্লেখযোগ্য বই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সংক্রান্ত খবর